লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম এর ব্যাপারে বিশদ আলোচনা

nidgovbd

New member
লিথুনিয়ায় কাজ করার জন্য, একটি ওয়ার্ক পারমিট ভিসা পেতে হলে কিছু নির্দিষ্ট ধাপ অনুসরণ করতে হয় এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট জমা দিতে হয়। এখানে লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম এবং প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:

আবেদন ফরম পূরণ​

ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন ফরমটি সঠিকভাবে পূরণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আবেদন ফরমটি লিথুনিয়ার অভিবাসন ও নাগরিকত্ব বিভাগের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যায়। ফরমটি পূরণ করতে যা যা প্রয়োজন:

  1. ব্যক্তিগত তথ্য:
    • পূর্ণ নাম
    • জন্ম তারিখ ও স্থান
    • জাতীয়তা
    • পাসপোর্ট নম্বর ও মেয়াদ
  2. কাজের তথ্য:
    • নিয়োগকর্তার নাম ও ঠিকানা
    • কাজের বিবরণ
    • কাজের মেয়াদ
  3. আবাসনের তথ্য:
    • লিথুনিয়ায় থাকার ঠিকানা
    • বাসা ভাড়ার চুক্তি বা অন্যান্য প্রমাণপত্র
  4. শিক্ষাগত তথ্য:
    • শিক্ষাগত যোগ্যতা
    • সনদপত্র ও প্রাপ্তির তারিখ

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস​

ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন করতে নিম্নলিখিত ডকুমেন্টগুলো জমা দিতে হবে:

  1. পাসপোর্ট: কমপক্ষে ৬ মাসের মেয়াদ থাকা পাসপোর্ট।
  2. জব অফার লেটার: লিথুনিয়ার নিয়োগকর্তার কাছ থেকে পাওয়া চাকরির অফার লেটার।
  3. স্বাস্থ্য বীমা: বৈধ স্বাস্থ্য বীমার কাগজপত্র।
  4. আবাসিক প্রমাণ: লিথুনিয়ায় থাকার প্রমাণপত্র, যেমন বাসা ভাড়ার চুক্তি।
  5. শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণ: প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত সনদপত্র।
  6. ফি জমাদানের রসিদ: ভিসা প্রসেসিং ফি জমাদানের প্রমাণ।

আবেদন প্রক্রিয়া​

  1. আবেদন জমা:
    • লিথুনিয়ার দূতাবাস বা কনস্যুলেটে আবেদন ফরম ও ডকুমেন্টস জমা দিন।
    • অনলাইনে আবেদন জমা দেওয়ার সুযোগ থাকলে সেই সুবিধাও গ্রহণ করতে পারেন।
  2. ফি পরিশোধ:
    • ভিসা প্রসেসিং ফি জমা দিন। এটি দূতাবাস বা কনস্যুলেটের মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
  3. ইন্টারভিউ:
    • আবেদন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে দূতাবাসে ইন্টারভিউয়ের জন্য উপস্থিত থাকতে হতে পারে।
  4. ভিসা অনুমোদন:
    • সমস্ত ডকুমেন্ট এবং ইন্টারভিউ সফল হলে, ভিসা অনুমোদন পেয়ে যাবেন।
 
Top